শুক্রবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
  • প্রচ্ছদ » কলকাতা » নদীর পানি নিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে কিছু না হলেও ভারতে দুই রাজ্যে দাঙ্গা
বিশেষ নিউজ

নদীর পানি নিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে কিছু না হলেও ভারতে দুই রাজ্যে দাঙ্গা


NEWSWORLDBD.COM - September 14, 2016

নদীর পানি নিয়ে ভারতে দুই রাজ্যে দাঙ্গাফারাক্কা ও গজলডোবা ব্যারাজ দিয়ে বাংলাদেশে পদ্মা ও তিস্তা নদীর পানি না দিলেও বাংলাদেশ কিছু করতে পারছে না। কিন্তু এই রকমই একটি নদীর পানি নিয়ে ভারতের এক রাজ্য অন্য রাজ্যের সঙ্গে সংঘাত ও দাঙ্গায় জড়িয়ে গেছে।

দুই রাজ্যের মধ্যে অভিন্ন নদীর পানির হিস্যা নিয়ে দাঙ্গা-সহিংসতা এবং প্রাণহানির পর ‘ভারতের সিলিকন ভ্যালি’ খ্যাত বেঙ্গালুরু শহরের প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো তাদের কর্মকাণ্ড বন্ধ করেছে দিয়েছে।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কর্নাটক রাজ্যকে কাবেরি নদীর কিছু পানি প্রতিবেশী তামিলনাড়ু রাজ্যকে ছেড়ে দিতে সোমবার ভারতের সুপ্রিম কোর্ট রায় দিলে মঙ্গলবার বেঙ্গালুরুতে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে অন্তত একজন নিহত হয়।

সহিংসতার কারণে আউটসোর্সিং কোম্পানি অ্যাকসেনচার, অনলাইনে পণ্যবিক্রেতা অন্যতম শীর্ষ কোম্পানি আমাজন ফ্লিপকার্টসহ ভারতীয় ও বিদেশি কোম্পানিগুলো তাদের কার্যক্রম বন্ধ করে কর্মকর্তাদের ঘরে অবস্থান করতে বলেছে।

পানি নিয়ে বিবাদ ও ২ সেপ্টেম্বর একটি শ্রমিক ধর্মঘটের কারণে এই মাসে কর্নাটকের রাজধানী বেঙ্গালুরুতে কোম্পানিগুলোর চার দিনের কার্যক্রমে বিঘ্ন সৃষ্টি হয় বলে রয়টার্স বলেছে।

চলতি সপ্তাহের এই সংঘাতে গাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে, ভাঙচুর হয়েছে স্কুলবাসেও। বন্ধ হয়ে গেছে অধিকাংশ স্কুল-কলেজ। দাঙ্গার জেরে অচল হয়ে পড়েছে জনজীবন, জারি করা হয়েছে কার্ফু। পুলিশের গুলিতে মারা যান একজন।

বিকাশমান ভারতের আধুনিক মুখ হিসেবে পরিচিত নতুন ব্যবসার জন্য আকর্ষণীয় এই শহরটিতে এ ধরনের মারাত্মক সংঘাতের ঘটনা এটাই প্রথম।

ইনফোসিস, বিরপো ও এমফাসিসের শীর্ষ ভারতীয় প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোর আবাস এই বেঙ্গালুরুতে। দশকের বেশি সময় ধরে বিকশিত শহরটির বাণিজ্যিক নগরীতে রয়েছে স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স ও ওরাকলের মতো বহুজাতিক কোম্পানির অফিসও। এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ভারতের ইংরেজিভাষী হাজার হাজার নাগরিক।

যেসব বড় কর্মীবহরের কোম্পানি মঙ্গলবার বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে তার মধ্যে ভারতের শীর্ষ সফটঅয়্যার নির্মাতা ইনফোসিস ও বিরপোও রয়েছে।

সহিংসতা কারণে পণ্য সরবরাহে বাধার সৃষ্টি হওয়ায় কোম্পানিগুলো আপাতত কাজ বন্ধ রেখেছে।

অনলাইনে খুচরা বিক্রিতে বিশ্বের শীর্ষ কোম্পানি অ্যামাজন বলেছে, “বেঙ্গালুরুর বর্তমান পরিস্থিতির কারণে পণ্য সরবরাহ সাময়িকভাবে বাধাগ্রস্ত হয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব আমরা পণ্য সরবরাহ ফের শুরু করব।”

এনডিটিভি বলেছে, সরবরাহকর্মীদের নিরাপত্তায় অগ্রাধিকার দেওয়া আরেক কোম্পানি ফ্লিপকার্টও তাদের কাজ বন্ধ রেখেছে।

শিল্প সংগঠন অ্যাসোচ্যাম এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, এই সহিংসতার কারণে কর্নাটক, বিশেষ করে বেঙ্গালুরু ২২ হাজার প্রায় ২২ থেকে ৩০ হাজার কোটি রুপির ক্ষতির মুখে পড়বে।

সংগঠনটির মহাসচিব ডি এস রাওয়াত বলেন, “বেঙ্গালুরুকে ঘিরে ভারত ‘সিলিকন ভ্যালি’ হিসেবে ভাবমূর্তি গড়েছিল তার মুখে কালি পড়েছে।”

গত দুদিন ধরে অশান্তির আগুন থামতে শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হস্তক্ষেপ চেয়েছেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী। তিনি তামিলনাডুর মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার সঙ্গে দেখা করার জন্যও প্রধানমন্ত্রীকে তিনি অনুরোধ জানান।

কাবেরি নদীর উৎস কর্নাটকে হলেও তা তামিলনাড়ুর মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। এর পানি বণ্টন নিয়ে দুই রাজ্যের মধ্যে কয়েক দশক ধরে বিবাদ চলে আসছে। কৃষিতে সেচের জন্য দুটি রাজ্যেই কাবেরির পানির উপর নির্ভরশীল।

যে কোনো সংবাদ জানতে আমাদের ফেসবুক পেজ 'লাইক' করতে পারেন (এই লাইনের নিচে দেখুন)...






-

Editor & Publisher: M. Arman Hossain

NEWSWORLDBD.COM
email: [email protected]
Phone: +8801787506342

©Titir Media Ltd.
News & Editorial: 39 Mymensingh Lane, Banglamotor
Dhaka-1205, Bangladesh.