শনিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বিশেষ নিউজ

মাদক ব্যবসায়ীকে ছাড়াতে ঢাবি ছাত্রলীগ সম্পাদকের দৌড়ঝাঁপ


NEWSWORLDBD.COM - October 13, 2016

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্সঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আটক এক মাদক ব্যবসায়ীকে ছাড়াতে উঠেপড়ে লেগেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স।

বুধবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে ওই মাদকব্যবসায়ীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় একাত্তর হল থেকে আটক করে শাহবাগ থানায় সোপর্দ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এরপর থেকে ওই ব্যক্তিকে ছাড়াতে দফায় দফায় তদবির করে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের এই নেতা। তাকে না ছাড়লে হলের বিভিন্ন গ্রুপের মধ্যে ঝামেলা বাঁধানো হবে বলেও হুমকি দেন তিনি।

আটক ওই ব্যক্তির নাম আমিনুল ইসলাম। তিনি আরিফ শেখ নামে এক হল ছাত্রলীগ নেতার কক্ষে (যমুনা ব্লকের ৭০০৯ নম্বর কক্ষ) নিয়মিত যাতায়াত করতেন। আরিফ শেখ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রিন্স গ্রুপের পক্ষ থেকে বিজয় একাত্তর হলের সভাপতি প্রার্থী।

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাফর আলী বিশ্বাস জানান, বুধবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিম তাকে শাহবাগ থানায় সোপর্দ করে। পরে ৫৪ ধারায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয় ও ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে কোর্টে চালান করা হয়। সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে আমিনুলকে গ্রেফতার করা হয়।

গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে হলের যমুনা ব্লকের ৭০০৯ নং কক্ষে আকস্মিক অভিযান চালায় হল কর্তৃপক্ষ। এ সময় কক্ষটির দরজা বন্ধ ছিল। বিচ্ছিন্ন ছিল বিদ্যুৎ সংযোগ। পরে টর্চ লাইট দিয়েই পুরো কক্ষে তল্লাশি চালায় আবাসিক শিক্ষকরা। আলো না থাকায় অভিযান চালাতে বিঘ্ন ঘটে। এই সুযোগে মাদকের একটি চালান সরিয়ে ফেলা হয়।

ওই হলের একাধিক শিক্ষক জানিয়েছেন, গত কয়েক মাস ধরে ওই কক্ষটি থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলে ইয়াবা সরবরাহ করা হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ছাত্র জানান, ‘গত এক বছর ধরে ওই লোকটি (আমিনুল) কক্ষটিতে নিয়মিত যাতায়াত করতেন। একটি ব্যাগ নিয়ে সে মাঝে মধ্যেই হলে আসতেন। দুই একদিন থেকেই আবার চলে যেতেন। তিনি যখন আসতো তখন বিভিন্ন হল থেকে ৫-৭ জন লোক এসে তার সঙ্গে দেখা করতো। তার গতিবিধি ছিল পুরোটাই সন্দেহজনক।’

এ বিষয়ে ঢাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রিন্স বলেন, আটক আমিনুলের কাছে মাদক পাওয়া যায়নি। তিনি বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগের নেতা আরিফ শেখের মামা। তিনি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েন। তাই তার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও থানার সঙ্গে কথা বলেছি।

হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. এ জেড এম শফিউল আলম ভূইয়া বলেন, এক বহিরাগতকে হল থেকে আটক করা হয়েছে। তার ব্যাপারে দীর্ঘদিন ধরে আমাদের কাছে অভিযোগ ছিল।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, বহিরাগত একজনকে আটক করে হল প্রশাসন শাহবাগ থানায় সোপর্দ করেছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক ড. এম আমজাদ আলী বলেন, ‘বুধবার রাতে হল প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমাকে জানানো হয়েছে- মাদক ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে এক বহিরাগতকে আটক করে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। আমি এটুকুই জানি।’

পুরো বিষয়টি হল প্রশাসন দেখছে বলেও জানান তিনি।

যে কোনো সংবাদ জানতে আমাদের ফেসবুক পেজ 'লাইক' করতে পারেন (এই লাইনের নিচে দেখুন)...






-

Editor & Publisher: M. Arman Hossain

NEWSWORLDBD.COM
email: [email protected]
Phone: +8801787506342

©Titir Media Ltd.
News & Editorial: 39 Mymensingh Lane, Banglamotor
Dhaka-1205, Bangladesh.