শুক্রবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বিশেষ নিউজ

সেদিন বিমানে শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা হয়েছিল


NEWSWORLDBD.COM - December 3, 2016

হাঙ্গেরী যাওয়ার প্রাক্কালে বিমান দুর্ঘটনা ঘটিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল বলে দাবি করেছেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, আল্লাহর অসীম রহমতে প্রধানমন্ত্রী বেঁচে গেছেন।

যড়যন্ত্রকারীদের ব্যাপারে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ইসলামের নামে অনেকে জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়ছে। একটি চক্র দেশের অশান্তি করছে। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে অসাম্প্রদায়িক দেশ গঠনে সকল দেশপ্রেমিক আলেমদের এগিয়ে আসতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে গত ২৭ নভেম্বর বুদাপেস্টের পথে রওনা হওয়া বিমানের বোয়িং উড়োজাহাজটি ওড়ার চার ঘণ্টা পর আকস্মিকভাবে তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী আশখাবাতে জরুরি অবতরণ করে।

শেখ হাসিনার বিমানের ওই ঘটনা নিয়ে নানা গুঞ্জন চলছে।

হাঙ্গেরিগামী প্রধানমন্ত্রীর বিমানের তুর্কমেনিস্তানে জরুরি অবতরণের জন‌্য তাৎক্ষণিকভাবে যান্ত্রিক ত্রুটিকে কারণ দেখানো হলেও প্রাথমিক তদন্তে দেখা যাচ্ছে, রক্ষণাবেক্ষণে সংশ্লিষ্টদের গাফিলতিই এর কারণ হতে পারে। সরকার প্রধানের বিমানে এই দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে তিনটি কমিটি গঠন করা হয়েছে, যার একটি করেছে বিমান।

ওই তদন্ত কমিটির এক সদস‌্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, “সমস‌্যার মূলে ছিল দৃশ‌্যত ‘মানবসৃষ্ট কারণ বা হিউম‌্যান এরর’। ওই দিন বিমানে বড় কোনো ধরনের যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা যায়নি। যা হয়েছে সেটি হিউম্যান এররের কারণে ঘটা সমস‌্যা বলে প্রাথমিক তদন্তে বোঝা গেছে।”

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জানান, সেদিন উড়োজাহাজটিতে জ্বালানি বা ফুয়েলের কোনো সমস‌্যা ছিল না, ইঞ্জিন অয়েল বা লুব্রিক‌্যান্টের ট‌্যাংকের একটি নাট ঢিলা হয়ে গিয়েছিল। সেটা ‘টাইট দেওয়ার পর সমস‌্যা কেটে যায়’।

কয়েকদিন আগে লুব্রিক‌্যান্ট ট‌্যাংকের পাশের অয়েল-অয়েল হিট এক্সচেইঞ্জার বা অয়েল প্রেসার সেন্সরে ‘ছোটখাটো একটি কাজ’ করা হয়েছিল বলে তদন্তে উঠে এসেছে।

তদন্ত কমিটির এই সদস‌্য বলেন, “সেখানে যারা কাজ করেছেন তারা ‘ইচ্ছা বা অনিচ্ছায়’ কিংবা ‘প্রয়োজনে বা অপ্রয়োজনে’ ওই নাটটি ধরেছিলেন বা লুজ করেছিলেন। সেটি পরে ঠিক করা হয়েছে কি না, দায়িত্বশীল কোনো ইঞ্জিনিয়ার তা দেখেননি, যদিও সেটি তার দায়িত্ব ছিল।”

বেসামরিক বিমান পরিবহনমন্ত্রী রাশেদ খান মেননও কর্তব‌্যরতদের গাফিলতির কথা বলছেন।

তিনি শনিবার বলেন, “ওই ঘটনায় গঠিত প্রাথমিক তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। সেই প্রতিবেদনের ভিত্তিতেই ওই দিন যারা ইন্সপেকশনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ছিলেন, তাদের ছয়জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।”

গাফিলতির কারণে ছয় কর্মকর্তাকে বরখাস্তের খবর তিন দিন আগেই বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রণালয় সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানায়।

তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার তার হাঙ্গেরি সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এক সাংবাদিকের প্রশ্নে বলেন, “এটা একটা যান্ত্রিক দুর্যোগ ছিল, আর কিছু না। তবে অ‌্যাক্সিডেন্ট যান্ত্রিক ত্রুটিতেও হতে পারে, আবার মনুষ‌্যসৃষ্ট কারণেও হতে পারে,” মন্তব‌্য করে নিজের জীবনের উপর নানা হামলার কথা তুলে ধরেন তিনি। অবশ্য বিমানে ‘মানবসৃষ্ট’ কারণ কি হতে পারে তার আর কোনো ব্যাখ্যা তিনি দেননি।

প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিশেষ ফ্লাইটে সেদিন বাংলাদেশ বিমানের প্রতিনিধি হিসেবে ছিলেন ফ্লাইট অপারেশন্স বিভাগের পরিচালক ক্যাপ্টেন ফারহাত জামিল।

ক‌্যাপ্টেন জামিল শনিবার এই ব্যাপারে বলেন, “ছোট্ট একটা যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর অনুমতি নিয়েই কাছের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হিসেবে আশখাবাতে জরুরি অবতরণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। খুব কম সময়ে ত্রুটি সারিয়ে আবার আমরা যাত্রা শুরু করি।”

তদন্ত চলার মধ‌্যে এ বিষয়ে আর কিছু বলতে রাজি নন অভিজ্ঞ এই পাইলট।

পরে হাঙ্গেরি থেকে যে বিমানে প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরেন, তা ক‌্যাপ্টেন জামিলই চালিয়ে আনেন।

দুই বছর আগে বিমানবহরে যোগ হওয়া উড়োজাহাজটি চালাচ্ছিলেন ক‌্যাপ্টেন এ বি এম ইসমাইল, যার কমপক্ষে ৪ হাজার ঘণ্টা বোয়িং ৭৭৭ উড়ানোর অভিজ্ঞতা ইতোমধ‌্যে হয়েছে।

এই ঘটনায় কী করতে পারতেন দুই যুগের কর্মজীবনে ২০ হাজারের বেশি ঘণ্টা উড়োজাহাজ নিয়ে আকাশে থাকা ক‌্যাপ্টেন ইসমাইল?

তবে ওই দিন কী হয়েছিল, তা নিয়ে কিছু বলতে রাজি হননি অভিজ্ঞ এই পাইলট। তার বক্তব‌্য- এটি তদন্তাধীন বিষয়।

উড়োজাহাজ চালনায় দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একাধিক ব‌্যক্তি বলেছেন, বিমানের ইঞ্জিনের গায়ের সঙ্গেই লাগানো থাকে অয়েল প্রেসার লাইন (oil pressure line), প্রধানমন্ত্রীর উড়োজাহাজে অয়েল ট‌্যাংকের নাটটি ঢিলে হয়েছিল।

অয়েল প্রেসার লাইন দিয়ে ইঞ্জিনে যায় ইঞ্জিন অয়েল। এর ‘বি’ নাট ((B Nut) ঢিলা হয়েছিল। অয়েল প্রেসার লাইনের পাশেই থাকে অয়েল-অয়েল হিট এক্সচেইঞ্জার (oil-oil heat exchanger)। অয়েল রিজার্ভারে (Oil Resurvoir) অয়েল থাকে। সেখান থেকে অয়েল প্রেসার লাইন দিয়ে হিট এক্সচেইঞ্জারের মাধ্যমে তাপমাত্রা কমিয়ে ইঞ্জিনে চলে যায় লুব্রিক‌্যান্ট।

পাইলটরা বলছেন, যদি কোনো কারণে লুব্রিক‌্যান্ট পড়ে গিয়ে নির্ধারিত পরিমাণের নিচে নেমে যায়, তাহলে এসওপি-স্ট‌্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রোসিডিউর (SOP-Standard Operating Prosidure) অনুযায়ী ইঞ্জিন বন্ধ করে দিতে হয়।

বোয়িং ৭৭৭ এ দুটি ইঞ্জিন থাকে। একটি ইঞ্জিন বন্ধ থাকলে আরেকটি দিয়ে জাহাজ চালিয়ে নেওয়া সম্ভব বলে জানান তারা।

এদিকে এতো আলোড়ন তোলা এই ঘটনা তদন্তে বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রণালয়, বেবিচক ও বিমানের তিনটি তদন্ত কমিটির প্রধানদের কেউ মুখ খুলতে চাচ্ছেন না।

যে কোনো সংবাদ জানতে আমাদের ফেসবুক পেজ 'লাইক' করতে পারেন (এই লাইনের নিচে দেখুন)...






-

Editor & Publisher: M. Arman Hossain

NEWSWORLDBD.COM
email: [email protected]
Phone: +8801787506342

©Titir Media Ltd.
News & Editorial: 39 Mymensingh Lane, Banglamotor
Dhaka-1205, Bangladesh.