বৃহস্পতিবার ২৪ অগাস্ট ২০১৭
  • প্রচ্ছদ » খেলা » নিউজিল্যান্ডে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও হারল বাংলাদেশ
বিশেষ নিউজ

নিউজিল্যান্ডে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও হারল বাংলাদেশ


NEWSWORLDBD.COM - January 6, 2017

বাংলাদেশ ১৮.১ ওভারে ১৪৮/১০; নিউ জিল্যান্ড ১৯৫/৭; নিউ জিল্যান্ড ৪৭ রানে জয়ী

বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় সাব্বির রহমান ও সৌম্য সরকারের ব্যাটে এক সময়ে আশা জাগিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ৪৪ রানের মধ্যে শেষ ৭ উইকেট হারিয়ে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে শেষ পর্যন্ত বড় ব্যবধানেই হেরেছে বাংলাদেশ।

৪৭ রানের জয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই ওয়ানডে সিরিজের মতো টি-টোয়েন্টি সিরিজও জিতল নিউ জিল্যান্ড।

সাব্বিরের ৪৮, সৌম্যর ৩৯ রানের পরও ১৮.১ ওভারে ১৪৮ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। ৪৪ রানে শেষ ৭ উইকেট হারানো বাংলাদেশ গুটিয়ে যায় ১৯তম ওভারে। রুবেল হোসেনকে ফিরিয়ে ১৪৮ রানে বাংলাদেশকে থামিয়ে দেন বেন হুইলার। বাংলাদেশ শেষ ৪ উইকেট হারায় মাত্র ৪ রানে।

ব্যাটিং ব্যর্থতা, ব্যাটিং বিপর্যয়! এই কথাগুলোই বারবার ঘুরেফিরে আসছে বাংলাদেশের নিউজিল্যান্ড সফরের শুরু থেকে। আজ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচেও তার ব্যতিক্রম হলো না। তার ওপর আবার বল হাতেও খুব বেশি জ্বলে উঠতে পারেননি মাশরাফি-মুস্তাফিজরা। সব মিলিয়ে আরো একবার হারের হতাশাতেই ডুবতে হলো বাংলাদেশকে। ওয়ানডের পর হারতে হলো টি-টোয়েন্টি সিরিজেও। দ্বিতীয় ম্যাচে বাংরাদেশের হারের ব্যবধানটা ৪৭ রানের।

টস জিতে ফিল্ডিং নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। বল হাতে শুরুটাও হয়েছিল ভালোভাবে। ৪৬ রানের মধ্যেই সাজঘরে ফিরেছিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রথম সারির তিন ব্যাটসম্যান। কিন্তু এরপর দুর্দান্ত এক শতক করে দলকে বড় সংগ্রহ এনে দেন কলিন মুনরো। বাংলাদেশের সামনে দাঁড়িয়ে যায় ১৯৬ রানের দুরূহ লক্ষ্য।

সেই পাহাড়ে চড়তে গিয়ে মোটেও সফল হতে পারেননি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। আরো একবার ব্যাটিং ব্যর্থতাই সঙ্গী হয়েছে টাইগারদের। সাব্বির রহমান ও সৌম্য সরকার বাদে বলার মতো প্রতিরোধ গড়তে পারেননি আর কেউ। ৩৬ রানে তিন উইকেট হারানোর পর চতুর্থ উইকেটে সাব্বির ও সৌম্য গড়েছিলেন ৪০ বলে ৬৮ রানের ঝড়ো জুটি। একাদশ ওভারে ৩৯ রান করে সৌম্য ফিরে যাওয়ার পর ফিকে হয়ে যায় জয়ের আশা। দুই ওভার পর সাব্বিরও ফিরে যান ৪৮ রান করে। বাংলাদেশের হারটাও নিশ্চিত হয়ে যায় তখনই। বাকি সময়টা শুধুই আসা-যাওয়ার মধ্যে ছিলেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। পুরো ২০ ওভার ব্যাটিংও করতে পারেনি সফরকারীরা। ইনিংস গুটিয়ে গেছে ১৮.১ ওভার ব্যাটিং করেই।

১৯৬ রানের এভারেস্টে চড়তে গিয়ে শুরুতেই লক্ষ্যচ্যুত হয়ে পড়ে টাইগাররা। ৪০ রানেই বিদায় নেন টপঅর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান। মিচেল স্যান্টনারের প্রথম ওভারে আউট হন ইমরুল কায়েস। স্লগ সুইপ করতে গিয়ে ডিপ মিড উইকেটে টম ব্রুসকে ক্যাচ দেন ইমরুল। গত ম্যাচের মতো আজও রানের খাতা খুলতে পারেননি বাঁহাতি এই ওপেনার। এরপর সাব্বিরকে নিয়ে জুটি বাঁধেন তামিম। দলীয় ৩৪ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ। রানআউট হন তামিম। গ্র্যান্ডহোমের বলে রান নিতে গিয়ে ভুল বোঝাবুঝির শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। এরপর বেন হুইলারের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে আউট হন সাকিব আল হাসান। মাত্র ১ রান করে ফিরে যান সাকিব।

টানা উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সমর্থকরা যখন ঝিমিয়ে পড়েছে, ঠিক সে সময় জয়ের আশা জাগিয়ে তোলেন সাব্বির রহমান ও সৌম্য সরকার। রানখরায় ভোগা সৌম্য করেছেন ৩৯ রান। সাব্বিরের সঙ্গে তাঁর ৬৮ রানের জুটিতে ম্যাচে ফিরেছিল টাইগাররা। তবে দলীয় ১০৪ রানে সৌম্য ও খানিক বাদে সাব্বির আউট হওয়ায় বাংলাদেশ আবার চাপে পড়ে যায়। ৩২ বলে ৪৮ রান করেন সাব্বির। এর পর আর প্রতিরোধ গড়তে পারেনি কেউই। শেষ পর্যন্ত ১৪৮ রানেই অলআউট হয়ে যায় টাইগারদের ইনিংস।

এবার পারলেন না মাহমুদউল্লাহ
রানের গতি বাড়ানোর চেষ্টায় ইশ সোধির বলে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমকে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন আগের ম্যাচে অর্ধশতক করা মাহমুদউল্লাহ। ১৫ বলে ১৯ রান করে তার বিদায়ের সময় দলের স্কোর ১৪৪/৭। তখনও বাংলাদেশের প্রয়োজন ৫২ রান।

দলকে বিপদে ফেলে মোসাদ্দেকের বিদায়
সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমানের পর দ্রুত ফিরে যান মোসাদ্দেক হোসেন। কেন উইলিয়ামসনের বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে ক্যাচ দেন এই তরুণ অলরাউন্ডার।

বাজে শটে আউট সাকিব
বাজে এক শটে ফিরেন সাকিব আল হাসান। বেন হুইলারের বলে কাভার-পয়েন্টে সহজ ক্যাচ দেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ২ বলে ১ রান করে সাকিব ফেরার সময় দলের স্কোর ৩৬/৩।

প্রথম ওভারে ফিরলেন ইমরুল
বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় শুরুতেই ইমরুল কায়েসকে হারায় বাংলাদেশ। মিচেল স্যান্টনারের করা ইনিংসের প্রথম ওভারে টম ব্রুসকে ক্যাচ দেন বাঁহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। শূন্য রানে ইমরুলের ফেরার সময় দলের সংগ্রহ ২/১।

একই একাদশ বাংলাদেশের
অনুমিতভাবেই একই একাদশ নিয়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। সফরে এই প্রথমবার টানা দুই ম্যাচ অতিথিরা খেলছে একই দল নিয়ে।

বাংলাদেশ দল: তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, সাব্বির রহমান, মাহমুদউল্লাহ, সাকিব আল হাসান, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন, নুরুল হাসান, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান।

যে কোনো সংবাদ জানতে আমাদের ফেসবুক পেজ 'লাইক' করতে পারেন (এই লাইনের নিচে দেখুন)...







Editor: AHM Anwarul Karim

NEWSWORLDBD.COM
email: [email protected]
Phone: +8801787506342

©Titir Media Ltd.
43/B/1, East Hazipara, Rampura
Dhaka-1219, Bangladesh.