রবিবার ২০ অগাস্ট ২০১৭
বিশেষ নিউজ

ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদকের প্রেম ও প্রতারণার গল্প


NEWSWORLDBD.COM - July 7, 2017

জাহিদ আল অামীন: বাংলাদেশ ছাত্রলীগের এক সময়ের দোর্দণ্ড প্রতাপশালী সেক্রেটারি ও বর্তমানে যুক্তরাজ্যে বসবাসরত সিদ্দিকী নাজমুল আলমের বিরুদ্ধে প্রতারণা ও সন্তান হত্যার অভিযোগ করেছেন তার প্রেমিকা।

ঘটনার প্রকাশ হয় ১ জুলাই। সেদিন ঘড়ির কাটা যখন রাত বারোটা স্পর্শ করলো, সুদূর লন্ডনে নাজমুল হয়তো বন্ধু-শুভাকাঙ্ক্ষীদের নিয়ে কেক কাটার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। দিবসটি উদযাপনের জন্য হয়তোবা আরও অনেক পরিকল্পনা ছিলো। কিন্তু সাত হাজার কিলোমিটার দূরে নাজমুলের ফেলে যাওয়া বাংলাদেশের এক অখ্যাত তরুণী তার সব আয়োজনের বাড়া ভাতে ছাই ঢেলে দিয়ে সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুকে মর্মস্পর্শী একটি স্ট্যাটাস প্রকাশ করলেন।

নাজমুলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ চারটি ছবি আর তার জীবনে ঘটে যাওয়া কালবৈশাখী ঝড়ের কিয়দংশ তুলে ধরেন সেই স্ট্যাটাসে। শম্পা মনি নামের ওই নারী নাজমুলের বিরুদ্ধে বিবাহবহির্ভূত যৌনতা ও ভ্রূণহত্যা এবং সীমাহীন প্রতারণার অভিযোগ এনেছেন।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশের ছাত্ররাজনীতি তথা জাতীয় রাজনীতির বিভিন্ন মঞ্চে বিতর্কিত মন্তব্য ও বক্তব্যের জন্য বহুল আলোচিত ছাত্রলীগের সাবেক এই সাধারণ সম্পাদককে এমন পোস্ট দেওয়ার পরে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। শম্পা মনির পোস্ট মুহূর্তেই ছড়িয়ে পড়ে সর্বত্র।

১ জুলাই, ২০১৭, বাংলাদেশ সময় রাত ১২:০০ টায় আপলোড হওয়া পৌস্টটি আপলোড করা হয়। পাঠকের বোঝার সুবিধার্থে নাজমুলের এক সময়কার যৌনসঙ্গী শম্পা মনির নিজ বয়ানে তুলে ধরা হয়েছে প্রেম ও প্রতারণার কাহিনী:

 

“শুন্য ঘরে তন্ন,তন্ন করে খুঁজি , সমস্ত ঘরেই পদ চিহ্ন রেখে গেছো । তোমার চলে যাওয়ায় নিঁখোজ বিজ্ঞপ্তিতে
ছেয়ে আসে আমার মন ,শুন্য ঘর, শহর আর আমায় দিয়ে গেলে বকেয়া বিলে দ্বায় করা মানুষের যত্ত উপহাস। তোমার বানানো গল্প। প্রচন্ড যন্ত্রনার কাছে একটা মানুঁষ লন্ডভন্ড হয়ে যায়, দিনে, দিনে নিজেকে আরো যেন জগন্য করে তুলছি, ঘরে বাহিরে তোমার এত মসকরা ,প্রিয় বিলাস,আমি ভূমধ্যসাগরে ডুবে মরছি। তোমরা আমাকে শক্ত করতে করতে আত্বঘাতী বানানোর আনন্দ খোজছো হয়তো। নিজেকে তছনছ করে একদিন বেরিয়ে যাবো! এই সাজানো গোছানো, শিথিল , পরিচ্ছন্ন , শোভন সামাজিক জীবনের অন্তরালে।অন্ত:পুরে লোকিয়ে রাখবো ভিসুভিয়াস, আবার এ ও ভাবি এত আগুন কোথায় লোকাবো এত জায়গা আমার কই? তুমি যে এত বাস্তবতা হারাবে এ যেন আমি দাঁড়িয়ে সপ্ন দেখছি,ভেতরে এত অমাবশ্যার জীবন নিয়ে এত প্রতিশ্রুতি কাউকে কখনও দেয়? কোথাও আর প্রেম নেই বলে যারা গলা ফাটায় উললুকের মত,আমি নিরবে সয্য করি ঝিনুকের মত, তোমার ছায়ার সাথে শরীর মিলাই,আমাদের প্রথম ছোয়া,সঙ্গম, সংসার, তোমার প্রথম উপার্জন, আমাদের সেই স্টেরশন, বেহিসাবী ভালবাসা , বিবাহ, সন্তানে সুখ, অথচ তাদের আসতে দিলে না দুনিয়াতে, বাবা হয়ে খুনি সাজলে, সব মেনে নিলাম তোমার কেরিয়ারের জন্য, আবার সপ্ন দেখালে আমাদের এক ঝাপি আনন্দ হই হুললোর,কই কিভাবে তলিয়ে গেলো, ধীরে, ধীরে এতটা অন্ধকার গ্রাস করে নিলো , সপ্নদ্বগ্ধ আর অবিশ্বাস্য আমি আজোও! সমস্ত অক্ষর আজ নিরক্ষরের দখলে, তারা কি তোমার অতীত জানে? কারা এসব ? অনেক কিছু জেনেও এত বিস্মিত নই, আমি বিশ্বাস করি আমার শতবর্ষের অধিকার,ব্রত , জন্মানতরের তপস্যা যার সন্ধান তুমি নিজেও জানো না! যে যার মত যতই হই ছনন ছাড়া। কেউ কিনে নিতে পারবেনা আমার এই দম্ভই সম্বল। তবে এ কঁথা নিশ্চিত যে তোমাকে দাহ্ করার পূর্বে আমার মৃত্যু নেই। কাঙালীনির সুখসপ্ন হত্যাকারীকে ক্ষমা কইরো।

আমি মধ্য রাতে লিখে রাখি শোকপ্রকাশ
অতিবৃষটিতে নষ্ট হওয়া ফসলের কঁথা
গহনার মতো লুকিয়ে রেখেছি
তোমার আগুনের ইতিহাস…
বহুদিন সমুদ্রে যাইনি বলে
শরীরে জমেছে ধূলি
ভিখারীর দল আমাকে দেখছে
রাজা ভেবে এক কৃতদাসকে ভালবাসতে …”

শম্পা মনির ফেসবুক আইডির লিংক: https://www.facebook.com/shampa.moni.90/posts/685882938286406?pnref=story

 

স্ট্যামফোর্ড ও ইডেন থেকে স্নাতক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার বিষয়ে স্নাকোত্তর ডিগ্রী নেয়া শম্পা মনি নাজমুলের নিজ জেলা জামালপুরেরই মেয়ে। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত কথোপকথনে শম্পা মনি জানান, নাজমুল লন্ডনে আশ্রয় নেওয়ার পর থেকেই এই সম্পর্ক অস্বীকার করে আসছে। দীর্ঘ অপেক্ষা এবং নানান উপায়ে চেষ্টা-তদ্বির করেও নাজমুলকে ফেরাতে পারেনি। প্রায় ১১ বছরের সম্পর্ক তাদের।

২০০৭ সালে নাজমুলের সঙ্গে প্রথম পরিচয় হয়, তখন নাজমুল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী এবং ছাত্রলীগের একজন সাধারণ কর্মী ছিলেন। পরিচয় থেকে প্রেম, পরিণয়। ২০১৫ সালে শম্পা গর্ভবতী হয়ে পড়লে, ইউনাইটেড হাসপাতালে অত্যন্ত গোপনীয়তার সঙ্গে গর্ভপাত করানো হয়। এরপরে শুরু হয় প্রতারণার গল্প। যে গল্পের শুরু আছে, শেষ কোথায়, শম্পা মনির জানা নেই। হয়তো স্রষ্টা ছাড়া কেউ জানে না। শম্পাকে দুটির বাচ্চার গর্ভপাত ঘটাতে বাধ্য করেন নাজমুল।

শম্পা মনির ফেসবুক পৌস্টটি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। লাইক, মন্তব্য আর শেয়ারের পাশাপাশি সন্তান ও ভালোবাসার মানুষকে হারানো শম্পামনির প্রতি হাজারো মানুষের ভালোবাসা ও সংহতি প্রকাশ পেয়েছে। তেমনিভাবে সাবেক ছাত্রলীগ সেক্রেটারীর বিরুদ্ধে মানুষের অব্যাহত নিন্দা ও ঘৃণার প্রকাশ পেয়েছে।

কামরুল ইসলাম নামে একজন লিখেছেন: “[হাসিনার সোনার ছেলে সাবেক ছাত্রলীগ সেক্রেটারী সিদ্দিকী নাজমুল আলম- এর কীর্তি পড়ুন : “সে কিরে কালা মাগুর! এই নি তর কাম? মেয়েটারে নিয়া ঘুরাঘুরি করলি, ফস্টিনস্টি করলি, বিয়া করলি, বাচ্চা মারলি! এরপরে ফালাইয়া রাইখ্যা পালাইয়া গেলি লন্ডনে… এইটা কেমুন কথা?
হ্যা তাইতো বলি, তুই ছিলি ছাত্রলীগের সেক্রেটারী… ”।

ফারজানা বাবু নামে অপর একজন লিখেছেন, “Farzana Babu Apu, apnr koto dukkho ta porimap korar khomota nei. Proti din majh rate apnr likha akadhik kobita pori. Like dite voy hy, oporadhi lage nijheke. Tai shudhu dekhi. Ato kosto niye manush kmne bache! Meye hoye apnr kosto feel korte pari. Khomota thakle dukkuo vag nitam apu. Sob peyeo amdr na pawar jhuli etto boro, r apnr! Khub kosto hy apnr smrity charon dekhe, aj choke e pani chole aslo. Allah kache chawa thaklo 1diner jonno holeo jno apni sob fire pan. Eto kichu haranor protidhan apni paben apu, in sha Allah paben…. 🙁 ”

 

মোহাম্মদ মহসীন লিখেছেন, এই খাঃপোঃ বিএনপির বড় নেতাদের ‘নেড়িকুত্তা’র মতো পেটানোর হুমকি দিয়া নিজেই এখন নেড়ি কুত্তা হইয়া গেছে।

নাসরীন আক্তার মন্তব্য করেছেন, “না জেনে মন্তব্য করতে চাইনা। তবে যে লেখাটা পড়লাম তার সাথে ছবির মিল খুজে পাচ্ছিনা। যদি এত প্রনয় ছিলো তবে কেনো বিচ্ছেন ভাবি আর বিশাদ অনুভব করছি।”

নাজমুল হক মন্ডল আপু মন্তব্য করেছে, এরা সব পারে, কারণ এদের আছে আপা।

উল্লেখ্য, শম্পা মনির পৌস্টটি ফেসবুকে আপলোড হবার অব্যবহিত পরে পূর্ব পশ্চিম বিডি নামে অনলাইন পোর্টালটিতে এই দম্পতির ছবিসহ একটি সংবাদ প্রকাশ করা হয়। তবে কিছুক্ষণ পরেই কর্তৃপক্ষ সংবাদটি তুলে নেন। বাংলাদেশের ছাত্ররাজনীতিতে অত্যন্ত প্রতাপশালী হবার কারণে একাধিক মিডিয়া গেটকিপার এ বিষয়ে সংবাদ প্রকাশ করে বিপদে পড়তে পারেন, এমন অাংশকা করে নিভৃত রেখেছেন বলে এ প্রতিবেদককে জানান।

ফেসবুকে সংক্ষিপ্ত চ্যাটে শম্পা মনি নিজের জীবনের নিরাপত্তার ব্যাপারে অাশংকা প্রকাশ করে এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, আমার ভীষণ ভয় হচ্ছে, ও যেকোন কিছু করতে পারে। জানি না এরপরে কী হবে!

যে কোনো সংবাদ জানতে আমাদের ফেসবুক পেজ 'লাইক' করতে পারেন (এই লাইনের নিচে দেখুন)...







Editor: AHM Anwarul Karim

NEWSWORLDBD.COM
email: [email protected]
Phone: +8801787506342

©Titir Media Ltd.
43/B/1, East Hazipara, Rampura
Dhaka-1219, Bangladesh.