রবিবার ২০ অগাস্ট ২০১৭
  • প্রচ্ছদ » সারা দেশ » মেডিকেল রিপ্রেজেনটেটিভদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার: নড়াইলে ওষুধ সরবরাহ বন্ধ ফারিয়ার
বিশেষ নিউজ

মেডিকেল রিপ্রেজেনটেটিভদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার: নড়াইলে ওষুধ সরবরাহ বন্ধ ফারিয়ার


NEWSWORLDBD.COM - July 11, 2017

নড়াইল সংবাদদাতা: ওষুধ প্রস্তুতকারী কম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধিদের সংগঠন ফারিয়া (ফার্মাসিউটিক্যাল রিপ্রেজেন্টেটিভ এসোসিয়েশন) এবং নড়াইল জেলা কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট এসোসিয়েশন (বিসিডি এস) পাল্টাপাল্টি অবস্থান নেওয়ায় গত দুই দিনে দোকান সমূহে ওষুধ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে।

জানা গেছে, সোমবার রাত ৯টায় ফারিয়ার কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ করে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে নড়াইল জেলা কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট এসোসিয়েশন। এর আগে ৮ জুলাই লোহাগড়ায় একটি কম্পানির ওষুধ গ্রহণ বন্ধ করে দেয় বিসিডিএস। এর প্রতিবাদে ৯ জুলাই লোহাগড়াতে সাংবাদিক সম্মেলন করে ওইদিন থেকে ফারিয়া জেলায় সকল কম্পানির ওষুধ অনির্দিষ্টকালের জন্য ওষুধ সরবরাহ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে এর পর থেকে ওষুধ বিক্রেতাদের সংগঠন বিসিডিএস রোববার থেকে সব ধরনের ওষুধ ক্রয় থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ১০ এবং ১১ জুলাই জেলায় স্বাভাবিক ওষুধ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। ওষুধ সরবরাহ বন্ধের ব্যাপারে উভয় পক্ষ পাল্টাপাল্টি বক্তব্য দিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন বিক্রয় প্রতিনিধি জানান, সোমবার কয়েকটি দোকানে ওষুধ সরবরাহের জন্য আদেশ ফর্দ তৈরি করে আজকে (মঙ্গলবার) ওষুধ সরবরাহ করতে গেলে তারা নেয়নি।

এ ব্যাপারে সরবরাহকারী সংগঠন ফারিয়া’র নড়াইল জেলা সভাপতি এস এম মাকসুদুল হক বলেন, ওষুধ বিক্রেতারা বিক্রয় প্রতিনিধিদের সাথে প্রতিনিয়ত খারাপ ব্যবহার, এমনকি মারধর করে ও অনেকদিন টাকা আটকে রাখে। তাছাড়া লোহাগড়ার ঘটনা মিটে যাবার পরে কেন তারা ওষুধ নিচ্ছেন না তা তাদের বোধগম্য নয়। মালামাল সরবরাহ করতে না পেরে আমাদের অনেক ওষুধ কম্পানির গাড়ি ফেরত গেছে। জরুরী ওষুধ সরবরাহ না থাকায় কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে তার জন্য ফারিয়া দায়ী থাকবে না।

বিক্রেতা সংগঠন বিসিডিএস এর নড়াইল জেলা সভাপতি হেফজুর রহমান খুশবু বলেন, বিক্রয় প্রতিনিধিরা দোকানের মেয়াদউত্তীর্ণ ওষুধ যথাসময়ে ফেরত নেয় না, এতে করে প্রায়ই কম্পানির প্রতিনিধিদের সাথে ওষুধ ব্যবসায়ীদের বাকবিতণ্ডা হয়। কোনো কোনো সময় মাসের পর মাস দোকানে মেয়াদউত্তীর্ণ ওষুধ থাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা ও গুনতে হয় ব্যবসায়ীদের। এ ব্যাপারে একমি কম্পানির সাথে দোকানদারদের গণ্ডগোল হতে পারে। তারা(ফারিয়া) একটি কম্পানির জন্যসমস্ত জেলায় সবগুলো কম্পনির ওষুধ একযোগে বন্ধ করতে পারে না। এ ঘটনায় এলাকার জনগণ যাতে দ্রুত গুরুত্বপূর্ণ ওষুধ পেতে পারে সে জন্য আমরা আলোচনা করে আশু সমাধানের চেষ্টা করছি।

যে কোনো সংবাদ জানতে আমাদের ফেসবুক পেজ 'লাইক' করতে পারেন (এই লাইনের নিচে দেখুন)...







Editor: AHM Anwarul Karim

NEWSWORLDBD.COM
email: [email protected]
Phone: +8801787506342

©Titir Media Ltd.
43/B/1, East Hazipara, Rampura
Dhaka-1219, Bangladesh.